শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সোনাপুর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে এম.পি মানিককে সংবর্ধনা শিক্ষক নিবন্ধনের জাল সনদে ১০ বছর ধরে চাকরি! প্রকাশিত হয়েছে তরুণ লেখিকা হাসিনা হাসি’র উপন্যাস ‘গহীনে শব্দ’ যাদুকাটা নদী থেকে বালু পাথর উত্তোলন বন্ধ: বছরজুড়ে বেকার লক্ষাধিক শ্রমিক আসছে তরুণ লেখক জাকির হোসেন রাজু’র বই ‘না ছুঁয়ে তোমাকে ছোঁব’ কবিতা : কলম সৈনিক : আমিনুল ইসলাম সিলেট বিভাগীয় বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন এড. আবুল হোসেন বিশ্বম্ভরপুরে শ্রমিক লীগের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ শাখা যাদুকাটা নদীর ভাঙ্গন: বিলিনের পথে বাগগাঁও-ডালারপাড় গ্রাম বাদাঘাট (দঃ) ইউপি নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন চান জামাল হোসেন

করোনায় হাওর পাড়ে ভিন্ন রকম ঈদ

বিশেষ প্রতিনিধি:: ঈদ আসে গরীব ধনী সবার জন্য আনন্দ নিয়ে। কিন্তু এবার ঈদ এসেছে এক ভিন্ন রকম পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেখানে নেই আনন্দ আছে উৎবেগ আর উৎকণ্ঠা। সবার মাঝেই বিরাজ করছে মরণঘাতক করোনা ভাইরাসের আতংক। সাথে যুক্ত আছে বৈরী আবহাওয়া। ফলে ঈদের জামায়াত ও পড়তে হয়েছে বৃষ্টি ভেজা সকালে। তবে মসজিদের ভিতরেই ছিলনা অন্যান্য বছরের মত খোলা স্থানে উৎসব মুখর পরিবেশে জমায়েত হয়ে নামাজ আদায় করার দৃশ্য, ছিল না আবহমান কাল ধরে চলে আসা নামাজ শেষে বুকে বুক মিলিয়ে সৌহাদ্য আর সম্প্রতির কুলাকুলি করার চিত্র। নামাজ শেষে যার যার মতই নিজ নিজ বাড়িতে চলে গেছেন আর অবস্থান করছে। তবে কিছু কিছু যুবকরা ঘুরাফেরা করলেও তা খুবেই সামন্য। এমনি চিত্র দেখা গেছে সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের গ্রাম গুলোতে। হাওর পাড়ের গ্রাম গুলোতে উৎসবের আয়োজন না থাকলেও সাভাবিক ভাবে চলাফেরা করছে সবাই। টাংগুয়ার হাওর পাড়ের বাসিন্দা হাদিউজ্জামান জানান,এবার ঈদ এলেও ঈদ মনে হয় না কারন কোন আনন্দ নেই। সবখানে সবার মাঝেই নিরাবতা। করোনায় যেন সবকিছু শেষ করে দিয়েছে। সাথে আবার বৈরী আবহাওয়া ফলে ঘর বন্ধ অবস্থায় আছে সবাই। নামাজ ও পড়তে হয়েছে বৃষ্টি বিজেঁ মসজিদের ভিতরেই। অথছ প্রতি ঈদেই কতই না আনন্দ হত। সবাই সবাই আত্নীয় স্বজন নিয়ে বেড়াতে যাওয়া হত। টাংগুয়ার হাওরে প্রতি ঈদেই প্রচুর পর্যটক নৌকা নিয়ে মাইক বাজিঁয়ে আসত এবার ত কোন কিছুই নাই।

সীমান্ত এলাকার বাসিন্দা সাংবাদিক সাবজল আহমেদ জানান, প্রতি বছরেই ঈদ করি অনেক আনন্দ সাথে এবার একবারেই ভিন্ন রখম কোন আয়োজন নেই। করোনায় সব আনন্দই মাটি করে দিয়েছে। এখন নিজেদের নিরাপত্তা নিয়েই সবাই ব্যস্থ। উত্তর বড়দল ইউনিয়নের বাসিন্দা ও সমাজ সেবক মাসুক মিয়া,ঈদ মানেই আনন্দ। কিন্তু এবার ঈদের আনন্দ করোনায় শেষ করে দিয়েছে। তারপরও সবাই সবার নিজ নিজ অবস্থা থেকে নিজেদের পরিবারের সদস্যদের নিয়েই ঈদের আনন্দ উৎযাপন করছে।

শেয়ার করুন




 

 

 

 

© 2017-2020 All Rights Reserved Amadersunamganj.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!