শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সোনাপুর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে এম.পি মানিককে সংবর্ধনা শিক্ষক নিবন্ধনের জাল সনদে ১০ বছর ধরে চাকরি! প্রকাশিত হয়েছে তরুণ লেখিকা হাসিনা হাসি’র উপন্যাস ‘গহীনে শব্দ’ যাদুকাটা নদী থেকে বালু পাথর উত্তোলন বন্ধ: বছরজুড়ে বেকার লক্ষাধিক শ্রমিক আসছে তরুণ লেখক জাকির হোসেন রাজু’র বই ‘না ছুঁয়ে তোমাকে ছোঁব’ কবিতা : কলম সৈনিক : আমিনুল ইসলাম সিলেট বিভাগীয় বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন এড. আবুল হোসেন বিশ্বম্ভরপুরে শ্রমিক লীগের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ শাখা যাদুকাটা নদীর ভাঙ্গন: বিলিনের পথে বাগগাঁও-ডালারপাড় গ্রাম বাদাঘাট (দঃ) ইউপি নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন চান জামাল হোসেন
ঈদে পর্যটক শূন্য টাঙ্গুয়ার হাওরসহ তাহিরপুরের পর্যটন কেন্দ্রগুলো

ঈদে পর্যটক শূন্য টাঙ্গুয়ার হাওরসহ তাহিরপুরের পর্যটন কেন্দ্রগুলো

ছবি: সংগৃহিত

আহাম্মদ কবির,তাহিরপুর:: করোনার প্রভাবে এবারের ঈদে পর্যটক শূন্য দেশের দ্বিতীয় রামসার সাইট প্রকৃতির সুন্দর্য্যের নীলাভুমি টাঙ্গুয়ার হাওরসহ তাহিরপুর উপজেলার উল্লেখযোগ্য প্রতিটি পর্যটন কেন্দ্র। প্রতিবছর ঈদের ছটিতে টাঙ্গুয়ার হাওরের ওয়াচটাওয়ার সংলগ্ন এলাকাসহ এশিয়ার সর্ববৃহৎ জয়নাল আবেদীন শিমুল বাগান, ট্যাকেরঘাট মুক্তি যুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত এলাকা শহীদ সিরাজলেক(নিলাদ্রী লেক) সহ বিভিন্ন পর্যটন এলাকা পর্যটকদের ভীড় লেগে থাকতো। হাওরে ভ্রমণের জন্য অগ্রীম নৌকা বুকিং দিয়েও পর্যটকদের নৌকা সংকটে ভুগতে দেখা গেছে।

জানাযার, এই নৌকার সংকট সামাল দিয়েছিলেন ট্যুর অপারেটর বিভিন্ন উপজেলা হতে নৌকা সংগ্রহ করে। কিন্তু এ বছর এ ঈদে স্থানীয় হাওর পাড়ের নৌকা গুলোই রয়েছে ঘাটেঘাটে তালাবন্ধ । এছাড়াও পর্যটকদের খাবার পরিবেশনের জন্য তাহিরপুর সদর বাজারে হোটেল টাঙ্গুয়ার ইন, আলমদিনা, তিনভাই, উপজেলার টেকেরঘাট সীমান্তে পাঁচবন্ধু রেস্টুরেন্ট সহ বিভিন্ন পর্যটনমুখী ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা ঘরে বসে দিন গুনছে কবে এমন পরিস্থিতির অবসান ঘটবে।

টাঙ্গুয়ার হাওর সংলগ্ন স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তাদের জানামতে রমজানের ঈদের সময় এমনভাবে পর্যটক শুন্য টাঙ্গুয়ার হাওর আর কখনো তারা দেখেননি। টাঙ্গুয়ার হাওর ওয়াচটাওয়ার সংলগ্ন এলাকায় প্রাতিষ্ঠানিক কোন হোটেলমোটেল না থাকলেও প্রতিবছর ঈদের সময় টাঙ্গুয়ার হাওর এলাকায় পর্যটকদের ভ্রমণকৃত নৌকা সাজ সজ্জা ও আলোক সজ্জায় জলমল করতো। সেখানে এখন সন্ধা নামলেই ভূতুরে অবস্থা। চিরচেনা টাঙ্গুয়ার হাওর পর্যটন এলাকা স্থানীয়দের কাছেই অচেনা লাগছে। জনমানবহীন এমন পরিবেশ বান্ধব পর্যটন এলাকা গত বিশ বছরে স্থানীয়রা দেখেনি। জনমানবহীন প্রকৃতির সুন্দর্য্য এলাকার প্রবেশদ্বার ওয়াচটাওয়ার আশপাশে সবুজাভ প্রকৃতি ছাড়া আর কিছুই চোখে পড়ছে না। অদৃশ্য শক্তি করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে পর্যটকদের ভ্রমনে অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা জারি করার কারনে পর্যটক শুন্য হয়ে গেছে টাঙ্গুয়ার হাওর পর্যটন এলাকায় । প্রকৃতির এই নীলাভুমিতে সমুদ্র পাঁচ দশেক স্থানীয় মানুষ ছাড়া কোন পর্যটকের পদচারনা নেই। নেই স্থানীয় মানুষেরও কোলাহল। টাঙ্গুয়ার হাওর ওয়াচটাওয়ার সংলগ্ন পর্যটনমুখী চা বিক্রেতারা অলস সময় পার করছেন। ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীণ হয়েছে এ সমস্ত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সহ  ট্যুর অপারেটর ও ট্যুরিষ্ট গাইডরা ও নৌকা চালকদের । বেকার হয়ে পরেছে পর্যটনমুখী স্বল্প আয়ের মানুষগুলো।

টাঙ্গুয়ার হাওর ইক্যু ট্যুরিস্ট গাইড বিলাল মিয়া বলেন, প্রতি বছরেই ঈদ আসলে আমার নিজে পরিচালিত রুপাবুই নৌপরিবহন সহ আমাকে পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য অতিরিক্ত পনের হতে বিশটি নৌকা ব্যবস্থা করে দিতে হয় এবছর নিজে পরিচালিত নৌকাটি বাড়ির ঘাটে তালাবন্ধ,  জানি না এভাবে আর কতদিন চলবে। ট্যুরিস্ট গাইড ও টাঙ্গুয়ার হাওর কেন্দ্রী সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতির সদস্য অখিল তালুকদার বলেন প্রতি বছরেই এই ঈদের অপেক্ষায় থাকি এ সময় পর্যটকদের ভ্রমণের চাহিদা বেড়ে যায়। আমরা তাদের আমাদের পেশাগত নিয়মনীতির মধ্যে তাদের সেবা দিয়ে কিছু নিজেরাও আর্থিকভাবে কিছুটা লাভবান হই। কিন্তু এ বছর করোনাভাইরাস আমাদের এ সুবিধা হতে বঞ্চিত করেছে। বর্তমানে কর্মহীন হয়ে দিনাতিপাত করছি। উনি বলেন আমরা যারা ট্যুরিষ্টদের উপর নির্ভরশীল নিন্ম আয়ের মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ায় সংসার চালানো নিয়েই দূঃসচিন্তায় রয়েছে আমাদের মধ্যে অনেকেই । নিন্ম মধ্যবিত্ত পর্যটনমুখী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও নৌকা চালক ট্যুরিস্ট গাইডদের এবারের ঈদ বিষন্নতায় ভরা। মনে কোন আনন্দ নেই।

শেয়ার করুন




 

 

 

 

© 2017-2020 All Rights Reserved Amadersunamganj.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!