শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সোনাপুর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে এম.পি মানিককে সংবর্ধনা শিক্ষক নিবন্ধনের জাল সনদে ১০ বছর ধরে চাকরি! প্রকাশিত হয়েছে তরুণ লেখিকা হাসিনা হাসি’র উপন্যাস ‘গহীনে শব্দ’ যাদুকাটা নদী থেকে বালু পাথর উত্তোলন বন্ধ: বছরজুড়ে বেকার লক্ষাধিক শ্রমিক আসছে তরুণ লেখক জাকির হোসেন রাজু’র বই ‘না ছুঁয়ে তোমাকে ছোঁব’ কবিতা : কলম সৈনিক : আমিনুল ইসলাম সিলেট বিভাগীয় বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন এড. আবুল হোসেন বিশ্বম্ভরপুরে শ্রমিক লীগের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ শাখা যাদুকাটা নদীর ভাঙ্গন: বিলিনের পথে বাগগাঁও-ডালারপাড় গ্রাম বাদাঘাট (দঃ) ইউপি নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন চান জামাল হোসেন
১৬০ কোটি না দিলে বিশ্বকাপ খেলতে পারবে না ভারত

১৬০ কোটি না দিলে বিশ্বকাপ খেলতে পারবে না ভারত

অনলাইন ডেস্ক: আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আইসিসির কোষাগারে জমা দিতে হবে ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ১৬০ কোটি রুপি। এই শর্ত মানতে না পারলে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপ খেলতে পারবে না ভারত। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিসিআই) এমন নির্দেশই দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি।

২০১৬ সালে ভারতে যে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজিত হয়েছিল, সেখানে ট্যাক্স ডিডাকশনের ক্ষতিপূরণ হিসেবে এই টাকা দাবি করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

অক্টোবরে সিঙ্গাপুরে আয়োজিত আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ের আলোচ্য বিষয়গুলোর মধ্যে অর্থ ফেরতের এই শর্ত উল্লেখ করা হয়েছিল। আইসিসির বর্তমান প্রেসিডেন্ট শশাঙ্ক মনোহর আরেকবার বিসিসিআইকে সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন। আগামী ৯ দিনের মধ্যেই আইসিসিকে সব পাওনা মিটিয়ে দিতে হবে বিসিসিআইকে।

অর্থ পাওনা যদি সময়মতো মেটাতে না পারে বিসিসিআই, তাহলে বর্তমান আর্থিক বছরে ভারতের প্রাপ্য টাকা থেকে সমপরিমাণ অঙ্ক কেটে নেবে আইসিসি।

Advertisement

এখানেই শেষ নয়। আইসিসি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে ঋণ ফেরত না দিলে ২০২১ সালে ভারত থেকে সরিয়ে নেয়া হবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। ২০২৩ সালে ভারতে হবে না ওয়ানডে বিশ্বকাপও।

আইসিসির প্রত্যেক টুর্নামেন্টের অফিশিয়াল ব্রডকাস্টার স্টার টিভি ২০১৬’র টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য সব ট্যাক্স কেটে প্রাপ্য বাকি অর্থ তুলে দিয়েছিল আইসিসির হাতে। সেই ক্ষতির অঙ্কই এবার বিসিসিআইয়ের থেকে ফেরত চায় আইসিসি।

অন্যদিকে, বিসিসিআই স্পষ্ট জানিয়েছে কোনরকম অর্থ দেয়া নিয়ে সম্মতি জানায়নি তারা। উল্টো আইসিসির কাছে তারা মিনিটস-এর কপি দাবি করেছে। যা প্রমাণ করবে আদৌ বিসিসিআই কোনো শর্তে রাজি হয়েছিল কিনা।

কোনরকম আপস করতে নারাজ বিসিসিআই। তাদের বক্তব্য, অন্যায়ভাবে যদি ভারতের রেভিনিউ কেটে নেয়া হয়, তাতে আইনের সাহায্য নেবে ভারতীয় বোর্ড।

 

সুত্র: চ্যানেল আই অনলাইন

শেয়ার করুন




 

 

 

 

© 2017-2020 All Rights Reserved Amadersunamganj.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!